ডার্ক চকোলেট কেক উইথ চকোলেট বাটার ক্রিম

ডার্ক চকোলেট কেক উইথ চকোলেট বাটার ক্রিম
ডার্ক চকোলেট কেক উইথ চকোলেট বাটার ক্রিম
DMCA.com Protection Status

ডার্ক চকোলেট কেক উইথ চকোলেট বাটার ক্রিম


এবারের ভ্যালেন্টাইন্স ডে + কর্তার জন্মদিন উপলক্ষে বানানো আমার এই কেক। এতটাই মজা আর পারফেক্ট হয়েছিল যে আমি নিজের ঢাক নিজে না পিটিয়ে থাকতে পারছি না।
তবে কাটার পরের ছবি তুলতে না পারার দুঃখটা রয়ে যাবে। তখন আসলে বাসায় মেহমান ছিল আর সবাই মিলে কেক খেতেই ব্যাস্ত। ছবির কথা মাথাতেই আসেনি।
ইশ ! যদি কেকের ভেতরের ইয়াম্মি সেই ছবি গুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করতে পারতাম। …. 😛

উপকরণ

কেক তৈরির জন্য উপকরণ :

  • ৩/৪ কাপ বা ৮০ গ্রাম ময়দা
  • ৩/৪ কাপ কোকো পাউডার
  • ২/৩ কাপ গোলানো বাটার বা তেল
  • দেড় কাপ বা ১৫০ গ্রাম চিনি
  • ৬ টা ডিম (বড় দেখে নিলে ভালো হবে )
  • ১/২ টেবিলচামচ বেকিং পাওডার

সিরাপের জন্য :

  • ১/২ কাপ তাজা কমলার রস
  • ৪ টেবিল চামচ পাউডার সুগার এগুলো একসাথে মিলিয়ে নিতে হবে।

চকোলেট বাটার ক্রীম তৈরী :

  • ২৫০ গ্রাম বাটার
  • ৩৫০ গ্রাম পাউডার সুগার
  • ২০ গ্রাম কোকো পাউডার
  • ২-৩ টেবিল চামচ তরল দুধ

যদি ক্রীমের জন্য উপকরণগুলো কাপের মাপে নিতে চান তো প্রতি ১ কাপ বাটারে আড়াই থেকে ৩ কাপ পাউডার সুগার নিবেন। আর কোকো পাউডার নিবেন আপনার পছন্দ অনুযায়ী। আমি লাইট চকোলেট ক্রীম পছন্দ করি তাই ১/৩ কাপ মতো কোকো পাউডার নিয়েছিলাম।


    প্রস্তুত প্রণালী

    • প্রথমেই ওভেনটাকে ২০০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড প্রি-হিট করতে দিয়ে দিন। যে প্যানে কেক বানাতে চান সেটাতে তেল বা বাটার ব্রাশ করে নিন। তারপর নিচে ও চারপাশে বেকিং পেপার লাগিয়ে দিন। যদি বেকিং পেপার না থাকে তাহলে তেল ব্রাশ করার পর ময়দা ছড়িয়ে নিবেন তাহলে কেক রিমুভ করাটা সহজ হবে আর নিচে লেগেও যাবে না।
    • এবার সাবধানে ডিম ভেঙে এর কুসুম ও সাদা অংশ আলাদা করে দুটি আলাদা পাত্রে রাখুন। ফ্রিজে রাখা ডিমের কুসুম ও সাদা অংশ আলাদা করতে সুবিধা হয়। কিন্তু মনে রাখবেন ডিমের সাদা অংশ ফোম করার সময় অবশ্যই সেটা রুম-টেম্পারেচারে নিয়ে তারপর করবেন। নাহলে ফোম হবে না ঠিকমতো। এজন্য ডিম ফ্রিজথেকে বের করে কুসুম আলাদা করে নিয়ে অন্তত ১/২ ঘন্টা বাইরে রেখে তারপর ফোম করবেন।
    • একটি মিক্সিং বোলে ডিমের কুসুম বিট করতে থাকুন। তারপর এতে ধীরে ধীরে তেল ও চিনি দিন এবং ততক্ষন পর্যন্ত বিট করুন যতক্ষণ না মিশ্রণটা ঘন ক্রীমের মতো হয় ও কুসুমের হলদে ভাব কেটে সাদাটে হয়ে যায়। তারপর এতে অল্প অল্প করে ময়দা, কোকো পাউডার ও বেকিং পাউডার চালনি দিয়ে চেলে চেলে ঢালুন ও হালকা করে ফোল্ড করে করে মেশান।
    • এবার অন্য একটি মিক্সিং বোলে ডিমের সাদা অংশ নিয়ে ফোম হওয়া পর্যন্ত বিট করুন। ইলেকট্রিক বিটার ইউজ করুন সহজ কবে। হাত দিয়ে করাও সম্ভব তবে অনেক সময় লাগবে এবং আপনার হাতের পেশিতে ভালো জোর ও থাকতে হবে। খুব বেশিক্ষন ধরে বিট করবেন না , তাহলে ফোম পানি ছেড়ে দিবে এবং ফলাফলে আপনার কেক স্পঞ্জি হবে না।
    • এখন আস্তে আস্তে এই ফোম ডিমের কুসুম দিয়ে করা মিশ্রনের সাথে মেশাতে হবে। প্রথমে অল্প করে ফোম নিয়ে মিশিয়ে নিন এতে করে মিশ্রণ তা কিছুটা ঢিলা হয়ে যাবে। তারপর বাকি ফোম দিয়ে ধীরে ধীরে ফোল্ড করে সব একসাথে ভালোকরে মিশিয়ে নিন।
    • আগে থেকে গরম করে রাখা ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডে ৩৫-৪০ মিনিট বেক করুন। ওভেনের মাঝখানের তাকে কেক প্যান রাখুন এবং তাপ উপর নিচে দু-দিকেই থাকবে। কেক হয়েছে কিনা চেক করতে ৩৫ মিনিট পর একটা টুথপিক কেকের মাঝবরাবর ঢুকিয়ে দেখুন। যদি টুথপিক পরিষ্কার ভাবে বের হয়ে আসে তো বুঝবেন কেক হয়ে গিয়েছে।
    • ওভেন থেকে বের করার কিছুক্ষন পর কেক প্যান থেকে রিমুভ করুন। তারপর কেকটাকে ভালোমতো ঠান্ডা করে নিন।

    চুলাতে করতে চাইলে

    • তাওয়ার উপর বালি গরম করুন। ছোট সসপ্যানে কেক এর মিশ্রণ ঢেলে ভাল করে মুখ বন্ধ গরম বালির উপর বসিয়ে দিন। মাঝারি আঁচে মোটামুটি ঘন্টা খানেক রাখুন। হয়ে গেলে বের করে ঠান্ডা করে নিন।
    • এবার ছুরি দিয়ে কেকটাকে আড়াআড়ি ভাবে তিনটা স্লাইস করে কেটে নিন। তারপর আমরা যে কমলার রসের সিরাপ তৈরী করে রেখেছিলাম ওটা প্রতিটি স্লাইসের গায়ে ভালো করে ব্রাশ করে দিতে হবে। এতে করে স্পঞ্জি কেক সিরাপটা টেনে নিবে আর খাওয়ার সময় দারুন একটা জুসি ভাব থাকবে কেকের মধ্যে। আপনারা চাইলে আপনাদের পছন্দ মতো যেকোনো সিরাপ দিতে পারেন।

    চকোলেট বাটার ক্রীম তৈরী

    • বাটার টা যখন আপনি বিট করবেন তখন সেটা যেন অবশ্যই রুম টেম্পারেচারে থাকে। বাটারের কালার তো হালকা হলদেটে থাকে। আপনাকে যেটা করতে হবে এটাকে বিট করতে করতে একেবারে চকচকে সাদা বানিয়ে ফেলতে হবে। ভুলেও এর আগে পাউডার সুগার অ্যাড করবেন না। ইলেকট্রিক বিটার দিয়ে করলে আপনার ৭/৮ মিনিট মতো সময় লাগবে।
    • তারপর আস্তে আস্তে অল্প অল্প করে পাউডার সুগার অ্যাড করতে হবে আর বিট করতে হবে। পুরোটা পাউডার সুগার দেয়া হলে দুধ দিয়ে আরেকবার বিট করতে হবে। তারপর আবার কোকো পাউডার দিয়ে বিট করতে হবে। ক্রিমটা যখন ফোমের মতো হয়ে যাবে আর মুখে দিলে চিনির কোনো কচকচানি থাকবে না তখন বুঝবেন আপনার ক্রিম পুরোপুরি তৈরী।
    • তবে এই কাজটা যদি আপনি একবারে বসে করতে চান তো বিরক্ত ধরে যাবে, চিনি মিশে যাওয়া বা ক্রিম ফোম হওয়া পর্যন্ত বিট করতে ইচ্ছে করবে না । মোটামুটি ক্রিমের মতো দেখতে হলেই কেকে লাগানো শুরু করবেন। ফলাফলে কেক খাওয়ার সময় ক্রিমে চিনির কচকচানি টের পারেন সাথে বাটারের গন্ধ।
    • আপনাকে বিরতি দিয়ে দিয়ে ক্রিম বিট করতে হবে। এতে করে দুটো সুবিধা যখন ক্রিম বিট করবেন পুরো উদ্যমে করতে পারবেন আর বিটার এর উপরেও প্রেশার কম পড়বে। অনেক সময় হয় স্প্রিডে অনেক্ষন যাবৎ বিট করতে থাকলে বিটার নষ্ট ও হয়ে যায়। আমি যেটা করেছি কেক ওভেনে ঢুকানোর পর থেকেই ক্রিম বানানো শুরু করেছি। কিছুক্ষন বিরতি দিয়ে দিয়ে একদম ক্রিম ফোম হওয়া পর্যন্ত বিট করে গিয়েছি।
    • হয়ে গেলে কেকের প্রতিটি স্লাইসের উপর আর একবার সিরাপ ব্রাশ করে  তারপর ক্রিম দিয়ে কাভার করে নিন।  এবার আপনার মনের মতো করে কেকটা সাজিয়ে নিন।  আমি নিজেও বেশি ভালো কেক ডেকোরেশন পারি না।  তবু ওই মুহূর্তে মনে যা এসেছে ওটাই করেছি।  কেক সাজানোর পর কমপক্ষে ১ ঘন্টা ফিজে রেখে দিন , কেক সেট হয়ে যাবে।  তবে এই টাইপের কেক একটু বাসি খেতেই ভালো লাগে , আমি আগের দিন রাতে বানিয়ে রেখেছিলাম পরদিন সন্ধ্যায় কেটেছি।  কিন্তু কাটার আগে আপনাকে অবশ্যই কেকটাকে সম্পূর্ণ ভাবে রুম-টেম্পারেচারে এনে তারপর কাটতে হবে।
      ডার্ক চকোলেট কেক উইথ চকোলেট বাটার ক্রিম last pic

    আরোও দেখুন …

    বাটার ক্রীম ফ্রস্টিং রেসিপি

    বেকিং ছাড়াই তুলতুলে চকোলেট কেক (চুলাতে তৈরী )