ইলিশ পোলাও

illish-polau
illish-polau

ইলিশ পোলাও 
ভাবছেন এ আর নতুন কি ? আসলেই নতুন না সেই পুরোনো আমলের খাবার। আজকাল তো নানা বাহারের ইলিশ পোলাও রান্নার চল হয়েছে। নারকেল দুধ , আদা-রসুন, ঘি , গরম মশলা, দই সহ যত রকমের সুগন্ধি উপকরণ আছে সব ঢালা হয়। আমি বুঝি না এইসব সুগন্ধের ভীড়ে ইলিশের সেই মন মাতানো সৌরভে ভরা ”ইলিশ পোলাও” কি আদৌ পাওয়া যায় ??

আমি ওটাকে বলি ” ইলিশ বিরিয়ানী ”…..খেতে অনেক মজা তবে ইলিশটা কোথায় যেন হারিয়ে যায়। আমি আজকে সেই মা-খালা দের রেসিপি অনুযায়ী ইলিশ পোলাও করেছি যাতে কোনো মশলার আধিক্য নেই। আছে পুরোনো দিনের সিম্পল সাদামাটা কিন্তু অপূর্ব স্বাদ।  

বি:দ্র: ইলিশ বিরিয়ানির রেসিপিও আসছে ?

উপকরণ :

[divider style=”normal” top=”0″ bottom=”15″]

[tie_list type=”plus”]

  • বড় সাইজের ইলিশ মাছের টুকরা – ৩ টুকরা
  • পেঁয়াজ কুচি মাঝারি সাইজের – ২ টি
  • বাসমতি/ কালোজিরা চাল – ২ কাপ
  • কাঁচা মরিচ ফালি – ৪/৫ টা
  • কাঁচা মরিচ বাটা – ২/৩ টি
  • জিরা বাটা – ১/২ চা চামচ
  • তেল – ৩/৪ টেবিলচামচ
  • পেঁয়াজ বেরেস্তা – ১ মুঠো
  • লবন পরিমাণমতো

[/tie_list]

[AdSense-B]

প্রণালী :

[divider style=”normal” top=”0″ bottom=”15″]

১। প্রথমে একটা প্লেটে মাছের টুকরা গুলো নিয়ে জিরাবাটা, কাঁচামরিচ বাটা, কয়েকটা আধাচেরা কাঁচামরিচ ও লবন দিয়ে ভালোকরে মেখে নিন। তারপর ঢেকে ৩০ মিনিটের জন্য রেখে দিন। চাইলে হলুদ দিতে পারেন , তবে না দিলেই বেশি ভালো।

[divider style=”normal” top=”0″ bottom=”15″]

২। এই সময়ের মধ্যে চাল গুলো মিনিট বিশেক পানিতে ভিজিয়ে রেখে তারপর ভালো করে পানি ঝরিয়ে নিন। এবার একটা প্যানে ১ টেবিলচামচ তেল দিয়ে চালগুলো মাঝারি আঁচে হালকা করে ভুনে নিন। নাড়তে নাড়তে যখন দেখবেন চালগুলো আগের থেকে একটু ভারী হয়ে গিয়েছে ও সুন্দর গন্ধ বের তখন বুঝবেন ভুনা হয়ে গিয়েছে। এবার প্যান থেকে ভুনে নেয়া আরেকটা পাত্রে ঢেলে রাখুন নাহলে প্যানের তাপে নিচের চাল বেশি মচমচে বা পুড়ে যেতে পারে।

[divider style=”normal” top=”0″ bottom=”15″]

৩। মেরিনেট করা মাছ মশলা থেকে তুলে তুলে নিন। মাছের গা থেকেও মশলা সরিয়ে নিবেন। এবার যে পাত্রে পোলাও রাঁধতে চান সেটাতে বাকি তেল টুকু ঢেলে গরম করে নিন। এতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা সোনালী হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। তারপর মেরিনেট করা সেই মাছের মশলা টুকু ঢেলে ২ মিনিট ধরে কষিয়ে নিন। মশলার উপরে তেল উঠলে সাবধানে মাছগুলো বিছিয়ে ঢাকনা দিয়ে দিন। আঁচ এসময় মাঝারি থাকবে। ২ মিনিট পর ঢাকনা তুলে সাবধানে মাছ গুলো উল্টে দিন। আর হাতের মুঠোয় করে কিছুটা পানি ছিটিয়ে দিন যাতে মশলা না পুড়ে যায়। তারপর আবার ঢেকে দিন মিনিট দুয়ের জন্য।

[divider style=”normal” top=”0″ bottom=”15″]

৪। মোটা মুটি ৫ থেকে ৭ মিনিট হলেই ইলিশ রান্না হয়ে যাবে। মনে রাখবেন ইলিশ বেশি সময় ধরে রান্না করলে কিন্তু শক্ত হয়ে যায় আর স্বাদটাও কমে যায়। এবার সাবধানে মাছগুলো মশলা থেকে তুলে নিয়ে এর মধ্যে ৪ কাপ গরম পানি ঢেলে দিন। আঁচ হাই করে দিন। পানি ফুটে উঠলে এতে ভুনে রাখা চাল গুলো দিন আর পরিমাণমতো লবন। কিছুক্ষন পর যখন পানি যখন টেনে আসবে তখন আঁচ কমিয়ে একদম লো করে দিন আর ঢাকনা দিয়ে দিন। ৫ মিনিট পর ঢাকনা সরিয়ে দেখবেন পোলাও প্রায় ৯০% সেদ্ধ হয়ে গিয়েছে, তখন হালকা করে একবার মিশিয়ে নিয়ে , কিছুটা পোলাও সরিয়ে রেখে মাছ গুলো বিছিয়ে দিন এবং সাথে কিছু গোটা কাঁচা মরিচ। তারপর বাকি পোলাও দিয়ে মাছ গুলো ঢেকে দিন। এবার পাত্রের ঢাকনা লাগিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট দমে রাখুন। হয়ে গেলে সাবধানে মাছ ও পোলাও প্লেটে বেড়ে বেরেস্তা ছড়িয়ে পরিবেশন করুন আর উপভোগ করুন কাঁচা পেঁয়াজ ও লেবু দিয়ে।