অন্যান্যআইসক্রিম

ম্যাংগো আইসক্রিম

আইসক্রিম এর মধ্যে ম্যাংগো আইসক্রিম আমার সবচেয়ে বেশি পছন্দদের। আর এটার জন্য বেশ কিছুদিন ধরে অনেক রিকোয়েস্ট ও আসছিলো। তাই এবার বানিয়েই ফেললাম। আমার নেক্সট আইসক্রিম এর রেসিপিটা আমি ভিডিওসহ দিবো আর সেটা হলো ”কোকোনাট আইসক্রিম ” …আমার সব রেসিপি পেতে আমার ফেসবুক পেজে জয়েন করতে পারেন। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে। :)

উপকরণ :

  • ৩ কাপ ফুলক্রিম দুধ (জ্বালিয়ে ঘন করে ২ কাপ )
  • ১+১/৪ কাপ হেভী ক্রিম
  • ১ টেবিল চামচ+ ১ চা চামচ কর্নস্টার্চ
  • ২/৩ কাপ কনডেন্সড মিল্ক
  • পাকা আম কুচি ২ কাপ
  • ১/৮ চা চামচ লবণ

প্রণালী :

১। একটা ছোট বাটিতে কর্নস্টার্চ ২ টেবিল চামচ দুধে গুলিয়ে নিন। এই মিশ্রণটা বাকি দুধে ঢেলে দিয়ে মিশিয়ে একটা সসপ্যানে করে মাঝারি আঁচে ফোটান। ঠিক ৪ মিনিট ..সঠিক কনসিসটেন্সির জন্য এটা জরুরি। তারপর নামিয়ে ঠান্ডা করে নিন। অনেকটা কাস্টার্ড এর মতো হবে।

২। এখন হেভি ক্রিম একটা মিক্সিং বোলে বিট করে ফোম করে নিন। বেশি বিট করবেন না তাহলে হেভি ক্রিম এর বাটার আর পানি আলাদা হয়ে যাবে। জাস্ট ফোম হলেই হবে। আর হ্যাঁ , বিট করার ব্লেড , হেভি ক্রিম ও যে বাটিতে বিট করবেন সেগুলো ২০ মিনিট আগে ফ্রিজে রেখে ভালোমতো ঠান্ডা করে নিবেন। তাহলে সুন্দর ফোম করতে পারবেন।

৩। আমের কুচি ব্লেন্ডারে ঢেলে স্মুদ পেস্ট বানিয়ে নিন। এবার এতে কনডেন্সড মিল্ক , লবন, দুধের মিশ্রণ ও ফোম করা ক্রিম দিয়ে আবারো হালকা করে নেড়ে নেড়ে অর্থাৎ ফোল্ড করে মিশিয়ে নিন।

৪। এবার আইসক্রিমের মিশ্রণ একটা প্লাস্টিকের বাটিতে ঢেলে ভালো করে মুখবন্ধ করে ২ ঘন্টার মতো ডিপফ্রিজে রেখে দিন। এই সময়ে আধাআধি জমবে।

৫। ২ ঘন্টা পর ফ্রিজ থেকে বের করে আবারো ভালো করে বিট করে স্মুদ করে নিন। এতে আইসক্রিমে জমা বরফকনা গুলো ভেঙে যাবে ও আইসক্রিমে কচকচে ভাব তা থাকবে না। তারপর ঢেকে আবার ফ্রিজে ঢুকিয়ে দিন। সবথেকে ভালো ফলাফল পেতে এই প্রসেস আরো ৩-৫ বার প্রতি ১ ঘন্টা পর পর করবেন। এতে আপনার আইসক্রিম একদম সুপার সফট এন্ড স্মুদি হবে ঠিক দোকানের মতো।

৬। শেষবার বিট করার পর এই আইসক্রিম ভালোকরে ঢেকে আবার ফ্রিজে ঢুকিয়ে পুরোপুরি জমতে দিন। হয়ে গেলে বের করে পরিবেশন করুন।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close