আনুষ্ঠানিক রেসিপিঈদ স্পেশাল রেসিপিডেজার্টমিষ্টিসেহেরি ও ইফতার রেসিপি

ঘরেপাতা দইবীজ দিয়ে পারফেক্ট মিষ্টিদই – সবরকম টিপস সহ রেসিপি

আস্সালামু আলাইকুম, আপনাদেরই অনুরোধের রেসিপি নিয়ে আবারো হাজির হয়ে গেলাম। আজ তৈরী করে দেখাবো ঘরেপাতা দইবীজ দিয়ে পারফেক্ট মিষ্টিদই। ভিডিওতে আমি চেষ্টা করেছি সবরকম টিপস সহ রেসিপি’টা আপনাদের সাথে শেয়ার করতে। একটু ভালো করে মন দিয়ে যদি আপনারা ভিডিও দেখেন বা কথাগুলো শুনেন, তাহলে নিজেই দোকানের মতো পারফেক্ট মিষ্টিদই বানাতে পারবেন ,,,,, ইনশাআল্লাহ ! যে কয়েকটি বিষয় আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে তা হলো….

১। যখন দুধে দৈবীজ মেশাবেন তখন এর তাপমাত্রা যেন ঠিক থাকে। দুধ হালকা গরম থাকবে কিন্তু তাই বলে একেবারে কুসুম গরম নয়… দুধ যদি কম গরম হয়, তাহলে দই জমতে অনেক বেশি সময় নিবে , পানি উঠবে বেশি অথবা নাও জমতে পারে। আর বেশি গরম হলে দুধ ফেটে যাবে। তাই এই দিকটা একটু খেয়াল রাখবেন।

২। দুধটা এমন গরম থাকবে যাতে আপনি আঙ্গুল ডোবাতে পারবেন কিন্তু অনেক্ষন ডুবিয়ে ধরে রাখতে পারবেন না(তারমানে এই না যে আঙ্গুল পুড়ে যাবে )। তাপমাত্রা থাকবে ৪৩ থেকে ৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

৩। যদি দই বীজ ফ্রিজে থাকে তাহলে অবশ্যই সেটাকে রুমটেম্পারেচারে এনে তারপর দুধে মেশাবেন। ঠান্ডা টা মেশালে দুধের তাপমাত্রা কমে যাবে।

৪। দৈবীজ বা টকদই অবশ্যই ছেঁকে আলগা পানি ফেলে দিয়ে ভালো করে ফেটে নিবেন। দই বীজের রেসিপি ? https://youtu.be/sklHmkyHnbE

৫। ওভেনে দই বসাতে চাইলে ভালো করে ঢেকে পাত্রগুলো বসিয়ে রাখুন। ৮০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড ওভেন চালিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট তারপর ওভেন বন্ধ করে রেখে দিন যতক্ষণ না দই জমছে। তবে অন্ততপক্ষে ২ ঘন্টার আগে ওভেনের দরজা খুলবেন না। ওভেনের তাপ ৫০ ডিগ্রি থেকে ম্যাক্সিমাম ৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে থাকবে। আপনি চাইলে ওভেন প্রি-হিট করে দই এর বাটি বসিয়ে ওভেন অফ করে দিতে পারেন। আবার সরাসরি বাটি বসিয়ে ৩০ মিনিট ওভেন চালিয়ে নিতে পারেন। দুটোই করা যাবে। ২ ঘন্টা পরে যদি দেখেন দই তখনো একেবারেই কিছু জমেনি তাহলে ওই একই তাপমাত্রায় আরো ৩০ মিনিট ওভেন চালিয়ে রাখুন। তারপর আবার সময় দিন দই জমা পর্যন্ত। আর বার বার ওভেনের দরজা খুলবেন না…এতে ভেতরে বাতাস ঢুকে তাপমাত্রা কমিয়ে দিবে।

৬। চুলায় দই বানাতে চাইলে এই লিংকে গিয়ে ভিডিওটি দেখে নিন সুবিধা হবে। ? https://youtu.be/ybjuVnWv1zw

৭। সনাতন পদ্ধতিতে করতে চাইলে দইয়ের পাত্রের মুখ ভালো করে ঢেকে , মোটা কোনো কাপড়ে মুড়ে বদ্ধ কোনো জায়গায় রেখে দিন , যেখানে আলো-বাতাস চলাচল করে না এবং একটু গুমোট গরম থাকে। যেমন রান্নাঘরের কোনো ক্যাবিনেট। এই পদ্ধতিতে দই জমতে অনেক সময় লাগবে। আর সেই সময় কতটা তা নির্ভর করে জায়গাটা কেমন গরম বা সেদিনকার আবহাওয়া কেমন তার উপর। যেমন গরমের দিনে দই অনেক তাড়াতাড়ি জমে যায়। আর হ্যাঁ দই হয়েছে কিনা সেটা বোঝার জন্য বারবার ঢাকনা খুলতে যাবেন না।

উপকরণঃ

  • দুধ – ৪ কাপ, জ্বালিয়ে ৩ কাপ করে নিতে হবে
  • চিনি – ১/২ কাপ বা স্বাদমত
  • পানি – ১/৪ কাপ
  • দই বীজ বা দোকানের কেনা টকদই – ১/২ কাপ , বেশি নিলেও ক্ষতি নেই।
Show More

Related Articles

Back to top button