অন্যান্যডিমের রেসিপি

ভাপা ডিমের কোরমা

আজ আমি আপনাদের ১ টি বাঙালি খাবারের (মেইন ডিশ ) রেসিপি দিবো যা ছোটোবড়ো সবার পছন্দের । সাধারণত বাসায় মেহমান এলে বা নতুন কোনো অতিথি কে দাওয়াত করে খাওয়াতে চাইলে আমরা ভেবে পাই না কি কি আইটেম রান্না করা যায়। গতানুগতিক মাছ মাংসের বাইরে যত্ন করে রান্না করা এই ভাপা ডিমের কোরমা ইনশাআল্লাহ আপনার অতিথির মন জয় করতে সাহায্য করবে। <3  আমি দেখেছি দাওয়াতে সেদ্ধ ডিম রান্না করলে ২/১ জন ছাড়া তেমন কেউ নেয় না। আর এভাবে রান্না করে দেখেছি সবাই অনেক আগ্রহ নিয়ে খায় সাথে প্রশংসা ও করে…. :)

উপকরণ


  • ডিম ৪-৬ টি
  • পেঁয়াজ বাটা ১/৪ কাপ
  • আদা বাটা ২ চা চামচ
  • রসুন বাটা ১/৪ চা চামচ
  • মরিচ গুঁড়ো ১/৪ চা চামচ(ইচ্ছা)
  • নারকেল দুধ ১ কাপ
  • ভাজা জিরা গুঁড়ো ১/২ চা চামচ
  • গোটা গরম মশলা ৩ টি করে
  • গুঁড়ো গরম মশলা ১/৩ চা চামচ
  • তেজপাতা ১ টি
  • কিশমিশ ৫/৬ টি
  • পেঁয়াজ বেরেস্তা ১/৪ কাপ
  • কাঁচামরিচ ৬-৭ টি
  • তেল ১/৪ কাপ
  • লবণ স্বাদমত
  • চিনি স্বাদমত

প্রনালি


১। ডিম কিছু পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ, ধনেপাতা কুচি আর লবণ দিয়ে ফেটে একটা মুখবন্ধ স্টিলের টিফিন বক্সে ঢেলে ভাপিয়ে নিতে হবে। ঠিক যেমন আমরা পুডিং বানাই।

২। একটা পাত্রে পানি দিয়ে তার উপর ডিমের বাটি বসিয়ে উপরে ভারী কিছু চাপা দিয়ে দিন। ১৫-২০ মিনিটের মত লাগে। মাঝে ঢাকনা তুলে চেক করে নিবেন পুরোটা হয়েছে কিনা। হয়ে গেলে নামিয়ে একটু ঠান্ডা করে টুকরো করে কেটে নিন।

৩। প্যানে তেল গরম করে তেজপাতা ও গোটা গরম মশলা ফোড়ন দিয়ে আদা, রসুন, কাঁচামরিচ ও পেঁয়াজ বাটা দিয়ে কষান। মশলার কাঁচা ভাব চলে গেলে নারকেল দুধ দিন। আপনি গুঁড়ো নারকেল দুধ বা ক্যানড তরল দুধ দিয়েও করতে পারেন।

৪। কিছুক্ষণ কষিয়ে গরম মশলা গুড়া, জিরা গুড়া , কিশমশ ও লবণ দিয়ে ভালকরে মিশিয়ে দিন। এবার ডিম ও কাঁচা মরিচ দিন, সাথে সামান্য পানি। ফুটে উঠলে বেরেস্তা ও চিনি দিয়ে মিশিয়ে দিন। একটু নেড়ে চেড়ে নামিয়ে ফেলুন।
-পোলাও বা ভাতের সাথে দারুণ জমবে।


Tags

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button