ঘরে পাতা মিষ্টি দই রেসিপি

বাঙ্গালীর বিশেষ দাওয়াতের আয়োজনে শেষ পাতে দইয়ের স্থান কিন্তু সবার উপরে। দই যেমন খেতে মজার তেমন এর উপকারিতাও বেশ। বিশেষ করে ভালো হজমের উপকারী হিসেবে দইয়ের পরামর্শ পুস্টিবিদরা দিয়ে থাকেন।
ঘরে পাতা মিষ্টি দই রেসিপি
ঘরে পাতা মিষ্টি দই রেসিপি
DMCA.com Protection Status

ঘরে পাতা মিষ্টি দই রেসিপি


Get it on Google Play
আধুনিক ও সনাতন পদ্ধতি দুইভাবেই বানিয়েছি। অনেক সুন্দর জমেছে দুটোই আর সেইইই মজা : মাটির পাত্রের দই দুইটা বানিয়েছি সনাতন পদ্ধতিতে। আর সিরামিকের সাদা বাটির দইটা আধুনিক পদ্ধতিতে। আমার কাছে জানতে চাইলে আমি বলবো একটু লম্বা প্রসেস হলেও সনাতন পদ্ধিতেই টেস্টি বেশি হয়। কথায় আছে না ''Old is Gold ''

উপকরণ

সনাতন পদ্ধতিতে দই বানানোর জন্য লাগবে:

  • ২ লিটার দুধ ফুলক্রিম
  • ১/৪ কাপ টক দই
  • পৌনে ১ কাপ বা স্বাদ অনুযায়ী চিনি
  • ১ টি মাটির পাত্র

আধুনিক পদ্ধতিতে দই তৈরিতে যা লাগবে :

  • ১ লিটার দুধ ফুলক্রিম
  • ২৫০ গ্রাম টক দই
  • ১/২ কাপ বা স্বাদ মতো চিনি (আধুনিক মানুষেরা চিনি কম খায় 😉 )
  • ১ টি কাঁচের/মাটির/প্লাস্টিক /মেলামাইনের বা সিরামিক পাত্র ( যে কোনো পাত্রেই বানাতে পারবেন। )

প্রস্তুত প্রণালী

সনাতন পদ্ধতিতে দই বানানোর প্রণালি:

  • একটা পাত্রে ২ লিটার দুধ ও আপনার স্বাদ অনুযায়ী চিনি দিয়ে জ্বালাতে থাকুন। দুধ ফুটিয়ে একদম ঘন করতে হবে , তবে খেয়াল রাখবেন যেন কোনো সর না পড়ে। ক্রমাগত নেড়ে নেড়ে ঘন করে ১/২ লিটারের কিছু কম করে নিতে হবে। এতে করে দই এ দারুণ বাদামি কালার আসবে। আর চিনিটা আসলে পরে দিলে ভালো হয়। ঘন হয়ে যাওয়ার পর চিনিটা অ্যাড করলে আর মিষ্টি বেশি হওয়ার ভয় থাকে না।
    ঘরেপাতা দইবীজ দিয়ে পারফেক্ট মিষ্টিদই - সবরকম টিপস সহ রেসিপি _ Mishti doi Recipe, Dahi, Sweet Yogurt_dudh jhal diye badami korte hobe
  • দুধ মোটামুটি ঠাণ্ডা করে নিন , আপনার হাতের আঙুল ডুবিয়ে রাখলে গরম সহ্য হয় ততটা ঠান্ডা করলেই চলবে। তবে সাবধান এর বেশি গরম থাকলে এতে টক দই মেশানোর পর কিন্তু চান কেটে যাবে একটা পাত্রে টক দই টা ভালকরে ফেটে নিয়ে তাতে দুধ মেশান। এমন ভাবে মেশাবেন যাতে দুধের সাথে দুইটা পুরোপুরি মিশে যায় আর মিশ্রনে ফেনা উঠে।
    ঘরেপাতা দইবীজ দিয়ে পারফেক্ট মিষ্টিদই - সবরকম টিপস সহ রেসিপি _ Mishti doi Recipe, Dahi, Sweet Yogurt Tok doi diye dite hobe
  • এবার যে পাত্রে দই জমাতে চান তাতে ফেনা সহ দুধের মিশ্রণ টি ঢেলে দিন। তারপর যে কোন গরম স্থান যেমন আলমারি, চুলার নিচে, রান্নাঘরের তাক ইত্যাদি জায়গা যেখানে তুলনামূলক গরম সেখানে রেখে দিন। ওপারে মোটা কাঁথা বা কম্বল জাতীয় কিছু দিয়ে ঢেকে দিন। তবে এসব স্থানে দই জমতে পাত্রের সাইজ হিসেবে ৬ থেকে ১০ ঘণ্টা সময় লাগবে। হয়ে গেলে ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন।
    ঘরেপাতা দইবীজ দিয়ে পারফেক্ট মিষ্টিদই - সবরকম টিপস সহ রেসিপি _ Mishti doi Recipe, Dahi, Sweet Yogurt_Doiakhar patre misron ta dhalte hobe

আধুনিক পদ্ধতিতে দই তৈরির প্রণালি:

  • দুধ ফুটিয়ে পৌনে ১ লি করুন। ক্রমাগত নেড়ে নেড়ে ১ লিটারের কিছু কম করে নিতে হবে। অন্য একটা পাত্রে চিনি ও খুবই সামান্য পানি দিয়ে জ্বালিয়ে ক্যারামেল তৈরি করুন। কম আঁচে চুলার ওপর বার বার নেড়ে নেড়ে মেশাতে থাকুন। চিনি লালচে হলে নামিয়ে তারপর এতে ফুটিয়ে রাখা গরম দুধ মিশিয়ে আবার কিছুক্ষণ নাড়ুন। এতে করে দই এ দারুণ বাদামি কালার আসবে।
  • দুধ মোটামুটি ঠাণ্ডা করে নিন , আপনার হাতের আঙুল ডুবিয়ে রাখলে গরম সহ্য হয় ততটা ঠান্ডা করলেই চলবে। তবে সাবধান এর বেশি গরম থাকলে এতে টক দই মেশানোর পর কিন্তু চান কেটে যাবে একটা পাত্রে টক দই টা ভালকরে ফেটে নিয়ে তাতে দুধ মেশান। এমন ভাবে মেশাবেন যাতে দুধের সাথে দইটা পুরোপুরি মিশে যায় আর মিশ্রনে ফেনা উঠে। এর জন্য আপনি ইলেকট্রিক বা নরমাল এগ বিটার ব্যবহার করতে পারেন।
  • যে পাত্রে দই জমাতে চান তাতে ঢেলে কিছু একটা দিয়ে ঢেকে দিন। ওভেনে ঢুকিয়ে (৫০-৮০ ডিগ্রি সে) রাখুন দিয়ে ১ ঘন্টা মতো , তারপর ওভেন বন্ধ করে দিবেন। ২ ঘণ্টা পরে দই জমে গেলে বের করে এনে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা পরিবেশন করুন।
    ঘরেপাতা দইবীজ দিয়ে পারফেক্ট মিষ্টিদই - সবরকম টিপস সহ রেসিপি _ Mishti doi Recipe, Dahi, Sweet Yogurt_oven hit kore doi

টিপস :

  • * সনাতন পদ্ধতিতে দই বানাতে গেলে বারবার দেখতে যাবেন না হলো কিনা। তাপমাত্রার হেরফের হলে অনেক সময় দই ঠিক মতো জমে না।
  • টক দই মেশানোর সময় মনে রাখবেন বেশি মেশালে ক্ষতি নেই, কিন্তু কম হলে দই ঠিক মত জমবে না।
Get it on Google Play