মুচমুচে আলুর ঝুড়ি ভাজা রেসিপি

গরম চায়ের সাথে আলু ঝুড়ি ভাজা খেতে কিন্তু ভীষণ মজা।
মুচমুচে আলুর ঝুড়ি ভাজা
মুচমুচে আলুর ঝুড়ি ভাজা
DMCA.com Protection Status

মুচমুচে আলুর ঝুড়ি ভাজা


বিকেলের নাস্তায় চায়ের সাথে হালকা কিছু নাস্তা যেন আমাদের নিত্যদিনের জীবনের সাথে মিশে আছে। গরম গরম চায়ের সাথে চিড়া ভাজা, ডাল ভাজা, ঝুড়ি ভাজা, চানাচুর এগুলো খেতে কিন্তু দারুন লাগে। আজ আপনার সাথে শেয়ার করবো আলু ঝুড়ি ভাজা রেসিপি। ছোটবেলায় স্কুল শেষে প্রায়ই কিনে খেতাম। স্কুলের সামনে দাঁড়ানো মামাদের কাছ থেকে এক টুকরো কাগজে ১ অথবা ২ টাকায় কিনে নিতাম আর কুড়মুড় করে খেতে খেতে চলে আসতাম বাড়ি। ছোটবেলার এ দিনগুলো সত্যিই অনেক মধুর ছিল। আজ চলুন দেখে নেই মজাদার এ আলু ঝুড়ি ভাজা রেসিপিটি। এটা খেতে অনেকটা আলুর চিপস এর মতোই। তবে মশলা ও বাদাম দিয়ে মাখালে বেশ অন্যরকম একটা স্বাদ পাওয়া যাবে। রেসিপিটা থাকলো আপনাদের জন্য 🙂
 

উপকরণ

  • ১ টি আলু বড় সাইজের
  • ১ মুঠো মটরশুঁটি
  • ১ মুঠো বাদাম
  • ১ কাপ তেল ভাজার জন্য

মশলা তৈরী :

  • ১/৪ চা চামচ আমচুর পাউডার
  • ১/৪ চা চামচ বিট লবন
  • ১/৪ চা চামচ আদা গুঁড়া
  • ১/৪ চা চামচ টেস্টিং সল্ট
  • ১/৪ চা চামচ শুকনা মরিচ গুঁড়া
  • ১/৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়া টালা
  • ১/৪ চা চামচ জিরা গুঁড়া ভাজা
  • ১/৪ চা চামচ শুকনা লেবুর পাতা হাতে গুঁড়া করা
  • *সব একসাথে একটা ছোট বাটিতে মিলিয়ে নিন। তারপর এতে পরিমান মতো লবন দিয়ে মিলিয়ে নিন। হয়ে গেলো আপনার মশলা তৈরী। একটা ছোট কৌটায় ভোরে রেখে দিতে পারেন পরে প্রয়োজন মতো ব্যবহার করবেন।

প্রস্তুত প্রণালী

  • আলু ছিলে একবার ধুয়ে নিন। একটা বাটিতে ৩/৪ কাপ ঠান্ডা বা নরমাল পানি নিয়ে নিন। তারপর আলুগুলোকের যতটা সম্ভব লম্বা ও পাতলা ঝুড়ি করে আপনার পক্ষে কাটা সম্ভব কেটে নিন। কাটা হলে সরাসরি পানির মধ্যে রাখবেন এবং এভাবেই রেখে দিন ৫ মিনিটের মতো। এতে করে যেটা হবে সেটা হলো আলুর যে বাড়তি স্টার্চ গুলো আছে সেগুলো বের হয়ে যাবে। আলু গুলো পানি থেকে ছেঁকে উঠানোর সময় আপনি দেখতে পাবেন পানির নিচে সাদা সাদা কিছু তলানি পড়ে আছে। ওগুলোই স্টার্চ আর আলুতে স্টার্চ বেশি থাকলে ভাজার সময় আঠালো হয়ে যায় ও খুব তাড়াতাড়ি বাদামি হয়ে যায়। তাতে ভেতরে ঠিকমতো ভাজা হয় না আরভাজার পর নরম হয় মুচমুচে ও হয় না।
  • একটা ছোট গর্তওয়ালা কড়াইতে তেল দিয়ে মিডিয়াম হাই-হিটে গরম করে নিন। আলু গুলো পানি থেকে তুলে ভালো করে পানি ঝড়িয়ে নিন। ভালো হয় কিচেন টাওয়েল বা টিস্যুর উপর রেখে পানি ভালোমতো শুকিয়ে নিতে পারলে। তাহলে আর তেলে দেয়ার পর খামোখা তেল ছিটাছিটি হবে না। তারপর এতে অল্প অল্প করে আলু দিয়ে ভেজে সোনালী করে ভেজে তুলে নিন। একবারে বেশি করে আলু দিবেন না।
  • এখন একইভাবে বাদাম ও মটরশুঁটি ভেজে নিতে হবে। মটরশুঁটি গুলো ভালো করে কাপড় বা টিস্যু দিয়ে শুকিয়ে নেবেন। চাইলে এগুলো তেলে না ভেজে শুকনা তাওয়াতেও ভেজে নিতে পারেন।
  • এবার একটা বড় বাটিতে আলু ভাজা, মটরশুঁটি ও বাদাম দিয়ে মিশিয়ে নিন। তারপর যে মশলাটা তৈরী করে রেখেছিলেন ওটা থেকে আপনার স্বাদ অনুযায়ী কিছু মশলা এর উপর ছড়িয়ে দিয়ে ঝাকিয়ে ঝাকিয়ে মিশিয়ে নিন। ব্যাস, কাহিনী খতম এবার খাওয়ার পালা 😀
মুচমুচে আলুর ঝুড়ি ভাজা
মুচমুচে আলুর ঝুড়ি ভাজা