নারকেল দুধে হাঁস ভুনা

শীতের দিনের স্পেশাল খাবারের মধ্যে নারকেল দুধে হাঁসের মাংস অন্যতম একটি আইটেম।
নারকেল দুধে হাঁস ভুনা
নারিকেল দুধ দিয়ে হাস ভুনা
DMCA.com Protection Status

নারকেল দুধে হাঁস ভুনা


শীতের দিনের স্পেশাল খাবারের মধ্যে নারকেল দুধে হাঁসের মাংস একটি অন্যতম আইটেম। আর এই হাঁস ভুনা’র সাথে গরম গরম চিতই পিঠা/ ছিটরুটি অথবা চালের রুটি যদি হয় তাহলে তো কথায় নেই, জমে এক্কেবারে ক্ষীর! অনেকেই হাঁসের মাংসে গন্ধ পান বলে খান না। কিন্তু রান্নার আগে ভালো করে গরমপানিতে বারকয়েক ধুয়ে নিলে এবং সময় নিয়ে কষিয়ে রান্না করলে এর কোনো গন্ধই থাকে না বরং আরো বেশি টেস্টি হয়। তাই এবারে নিয়ে এলাম ভীষণ মজার নারকেল দুধে হাঁস ভুনার রেসিপি।
বাটা মশলায় রান্না করলে বেশি মজা হয়, তবে চাইলে গুঁড়া মশলা দিয়েও রান্না করা যাবে এই নারকেল দুধে হাঁস ভুনা

উপকরণ

  • ২ কেজি হাঁসের মাংস হাড্ডি-চর্বি-চামড়া সহ
  • আস্ত গরম মশলা (শুকনামরিচ, এলাচ, দারুচিনি, লবঙ্গ ও তেজপাতা)
  • ১/২ কাপ তেল
  • দেড় থেকে ২ কাপ পেঁয়াজ কুচি
  • ২ টেবিলচামচ শুকনামরিচ বাটা
  • ২ টেবিলচামচ আদা বাটা
  • ১ টেবিলচামচ রসুন বাটা
  • ১ টেবিলচামচ জিরা বাটা
  • ১ টেবিলচামচ ধনিয়া বাটা
  • ১ চা চামচ হলুদ বাটা
  • ১/২ টেবিলচামচ গরমমশলা গুঁড়া
  • ১/২ টেবিলচামচ জিরাগুঁড়া ভাজা
  • ৮-১০ টি কাঁচামরিচ
  • ১ থেকে দেড় কাপ পানি
  • ২ কাপ নারকেল দুধ



প্রস্তুত প্রণালী

  • প্রথমেই মাংসের টুকরোগুলোকে চামড়া সহ মাঝারি টুকরো করে কেটে নিতে হবে। সেই সাথে চামড়ার ছোটছোট লোম পরিষ্কার করতে হাঁস পুড়িয়ে/ আগুনে ঝলসে নিতে পারেন। অনেকেই হাঁসের মাংসে গন্ধ পান বলে খান না। কিন্তু রান্নার আগে ভালো করে গরমপানিতে বারকয়েক ধুয়ে নিলে এবং সময় নিয়ে কষিয়ে রান্না করলে এর কোনো গন্ধই থাকে না বরং আরো বেশি টেস্টি হয়।
    হাঁসের মাংস
  • একটা বড় কড়াইতে তেল গরম করে গোটা গরম মশলা ফোঁড়ন দিয়ে পেঁয়াজ কুচি সোনালী করে ভেজে নিন। তারপর এতে গরমমশলা ও ভাজা জিরা গুঁড়া বাদে একে একে বাকি সব মশলা দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিতে হবে। কষাতে কষাতে মশলা থেকে তেল বের হলে মাংসের টুকরো গুলো দিয়ে আবারো ভালো করে কষে নিতে হবে।
    নারিকেল দুধে হাঁসের মাংস ভুনা
  • কষানো হয়ে গেলে মাংস সেদ্ধ হতে যতটা পানি দরকার সেটা দিয়ে ঢেকে চুলার আঁচ একটু কমিয়ে দিতে হবে। এবং ততক্ষন রান্না করে নিতে হবে যতক্ষণ না মাংস ভালো করে সেদ্ধ হয়ে আসে, শুধু মাঝে মধ্যে ঢাকনা তুলে একটু নেড়েচেড়ে দিতে হবে। আমার দেড় কাপ পানি লেগেছিলো। মাংসভেদে কম বা বেশিও লাগতে পারে।
    হাঁসের মাংস ভুনা
  • প্রায় মিনিট ৩০ ঢেকে অল্প আঁচে রান্না করার পর দেখবেন মাংস সেদ্ধ হয়ে গিয়েছে একইসাথে ঝোল শুকিয়ে গাঢ় হয়ে গিয়েছে। এই পর্যায়ে নারকেল দুধ দিয়ে দিন এবং মাঝারি আঁচে নেড়েচেড়ে রান্না করে নিন। দুধ ফুটে উঠলে কাঁচামরিচ, চিনি, গরমমশলা ও ভাজা জিরা গুঁড়া দিয়ে নেড়ে মিশিয়ে ঢাকনা লাগিয়ে ৫ মিনিট রান্না করে নিন। এতেকরে এগুলোর সুগন্ধ মাংসে অটুট থাকবে।
    এ নারিকেল দুধ মিশিয়ে নিন
  • হয়ে গেলে ঢাকনা তুলে নিন।কিছুক্ষন পরেই দেখবেন নারকেল দুধ শুকিয়ে তেল বের হতে শুরু করেছে তখন একটু নেড়ে চেড়ে নামিয়ে ফেলুন। পরিবেশন করুন চালের রুটি, ছিটরুটি বা চিতই পিঠার সাথে ভীষণ মজার রেসিপি নারকেল দুধে হাঁস ভুনা । ভাত, পোলাও বা খিচুড়ির সাথেও খেতে পারেন।
    হাঁসের মাংস ভুনা