বিফ শামি কাবাব রেসিপি

beef shami kabab or beef tikia
beef shami kabab recipe
DMCA.com Protection Status

বিফ শামি কাবাব রেসিপি


অতিথি আপ্যায়নে বা পোলাওয়ের সাথে পরিবেশনের জন্য আমাদের দেশের সবচেয়ে কমন এবং জনপ্রিয় কাবাব হলো বিফ টিকিয়া বা বিফ শামি কাবাব
কোরবানি ঈদের পরে মোটামুটি সবার ফ্রিজেই মাংস থাকে। এই সময় বেশি করে শামি কাবাব বানিয়ে ডিপ করে রেখে দিলে বিকেলের নাস্তা সহ বাচ্চার টিফিন বা মেহমানদারিতে দারুণভাবে কাজে লাগবে ।

উপকরণ

  • ১/২ কেজি গরুর মাংস ( চর্বি ছাড়া সলিড আঁশযুক্ত )
  • ১০০ গ্রাম বা ১/২ কাপ ছোলার ডাল ভেজানো
  • ২ টি পেঁয়াজ মোটা কুচি
  • দেড় টেবিলচামচ করে আদা ও রসুন কুচি
  • ২ টি তেজ পাতা
  • ১/২ চা চামচ শাহী জিরা
  • ৩ টি সাদা এলাচ
  • ১ টি কালো এলাচ
  • ২ টুকরো দারুচিনি
  • ৪/৫ টি বা স্বাদমতো শুকনা মরিচ
  • ১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়া
  • পরিমাণমতো লবন
  • ১ কাপ পানি

মাখানোর জন্য:

  • ১/৪ কাপ পেঁয়াজ বেরেস্তা
  • ১/২ টেবিল চামচ লেবুর রস
  • ১ টেবিল চামচ পুদিনা পাতা মিহি কুচি
  • ২ টি কাঁচামরিচ মিহি কুঁচি
  • ১ চা চামচ গরম মশলা গুঁড়া
  • বড় ২ টি ডিম ফেটানো
  • তেল। ভাজার জন্য

প্রস্তুত প্রণালী

  • প্রথমে ডাল গুলো ঘন্টা খানেক ভিজিয়ে রাখুন। এতে ডাল ফুলে নরম হবে ও তাড়াতাড়ি সেদ্ধ হবে। মাংস ছোট ছোট পাতলা করে কেটে নিন তাতে সেদ্ধ ও তাড়াতড়ি হবে আর বেটে নিতেও সুবিধা হবে।
  • এবারে ডাল বাদে প্রথম লিস্টের সব উপকরণ একসাথে চুলায় বসিয়ে দিন। মাংস সেদ্ধ হয়ে এলে এবং অল্প পানি থাকতেই ডাল গুলো দিয়ে আবারো ভালো করে সেদ্ধ করে নিন। চুলার আঁচ এমন থাকবে যাতে মাংস ও ডাল দুটোই পরিপূর্ণ সেদ্ধ হয় এবং হাড়িতে বাড়তি কোনো পানি না থাকে। একদম শুকনা শুকনা করে সেদ্ধ করতে হবে।
  • সেদ্ধ হয়ে গেলে গোটা মশলা গুলো সরিয়ে ডাল ও মাংসের মিশ্রণ পাটায় বা ব্লেন্ডারে মিহি করে বেটে নিতে হবে। তারপর বাদ বাকি উপকরণ দিয়ে ভাল করে মেখে গোল গোল টিকিয়া বানাতে হবে। এখন এই টিকিয়া কাবাবগুলো মাঝারি আঁচে এপিঠ-ওপিঠ লাল করে ভেজে নিতে হবে। ভাজার জন্য একদম ডুবোতেলে ব্যবহার না করে কাবাবগুলো যাতে অর্ধেকটা ডুবতে পারে ততটা তেলে ভাজবেন, এতে করে খুলে যাবে না।
  • পরিবেশন করুন পোলাও এর সাথে অথবা নাস্তার টেবিলে টমেটো ক্যাচাপের সাথে।

টিপস:

  • এই কাবাব একসাথে বেশি করে বানিয়ে ডীপ ফ্রিজে সংরক্ষন করে রাখতে পারেন। পরে প্রয়োজনমত ভেজে নিতে পারেন। কাবাবের শেপ দেয়ার পর একটা প্লেটে পাশাপাশি বসিয়ে ১ ঘন্টা ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন…শক্ত হয়ে গেলে প্লেট থেকে তুলে একটা পলিব্যাগে ভরে আবার ফ্রিজে ঢুকিয়ে রাখুন। দু-তিন মাস রেখে খেতে পারবেন।