ইফতারে স্পেশাল স্পাইসি ডিমালু চপ

স্পাইসি ডিমালু চপ
স্পাইসি ডিমালু চপ
DMCA.com Protection Status

ইফতারে স্পেশাল স্পাইসি ডিমালু চপ


ইফতারিতে আমাদের বাঙালিদের কাছে আলুর চপ একটা অপরিহার্য আইটেম।  প্রতিদিনের ইফতারিতে তো বানানো হয়েই থাকে ,অনেক সময় একটু ভিন্ন ধাঁচের ইফতারি বানালেও দেখা যায় তার মধ্যেও ইনি থাকেন। বিশেষ করে আমার বাসায় এরকমই  ঘটনা ঘটে থাকে।
সাধারণ আলুর চপ এর পাশাপাশি আমি মাঝে মাঝে এতে একটু ভিন্নতা আনি।  এই যেমন কখনো একটু বেশি স্পাইসি, কখনো ধনেপাতা বা পুদিনাপাতার টাচ , কখনো মাংস , কখনো পেঁয়াজ এর পুর ভরে , কখনো সেদ্ধ ডিম চটকে , কখনো সেদ্ধ ডিম কুচিয়ে দিয়ে।
সব গুলোই খুবই মজার হয় এবং স্বাদেও ভিন্নতা আনে।  তবে সবথেকে সহজ আর পরিবারের সদস্যদের চাহিদা যেটাতে বেশি সেই রেসিপিটাই আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করছি।  দেখুন ভালো লাগে কিনা… 🙂

উপকরণ

  • ৩ টি ডিম (সেদ্ধ)
  • ৬ টি আলু মাঝারি বড় (সেদ্ধ)
  • ১ টেবিল চামচ ভাজা জিরা গুঁড়া
  • ২ চা চামচ ভাজা শুকনা মরিচ ( বা চিলি ফ্লেক্স )
  • ১ কাপ পেঁয়াজ বেরেস্তা
  • ২ চা চামচ আদা ও রসুন বাটা
  • ২/৩ টি কাঁচা মরিচ কুচি
  • ১/৪ চা চামচ গরম মশলা গুঁড়া
  • স্বাদ মত গোলমরিচ গুঁড়া
  • ১ টেবিল চামচ ধনে পাতা কুচি (ঐচ্ছিক)
  • স্বাদ মত লবন

কোটিং এর জন্য

  • ১ কাপ বেসন
  • ১ টেবিল চামচ চালের গুঁড়া
  • ১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়া
  • ১/২ চা চামচ মরিচ গুঁড়া
  • সামান্য বেকিং পাওডার
  • প্রয়োজন মতো লবন ও পানি

কোটিং এর সব একসাথে মিলিয়ে মাঝারি ঘন স্মুদ ব্যাটার করে নিন।

  • ভাজার জন্য তেল

প্রস্তুত প্রণালী

  • সেদ্ধ আলু ভালো মত ভর্তা করে নিন যেন এতে কোনো দানা না থাকে। এবার এর সাথে ডিম দিয়ে মাখিয়ে অন্য সব উপাদানগুলো দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।
  • এখন পরিমান মত আলুর মিশ্রণ দিয়ে ইচ্ছা অনুযায়ী গোল বা লম্বাটে আকার দিয়ে চপ বানান। তারপর বেসনের গোলায় ডুবিয়ে ভালো করে কোট করে নিন।
  • তারপর মাঝারি তাপে গোল্ডেন ব্রাউন করে ভেজে নিন। তৈরী হয়ে গেল আপনার ডিমালু চপ ,টমেটো সস দিয়ে গরম পরিবেশন করুন।
  • ( অথবা আপনি চাইলে ডিম আলুর সাথে ভর্তা না করে ছোট ছোট কুচি করে মিশিয়ে ও চপ বানাতে পারেন। অনেক সময় তাড়াতাড়ি করতে চাইলে শুধু জিরা গুঁড়া এবং লবণ এবং মরিচ দিয়ে আলুর মিশ্রণ বানিয়েও করতে পারেন. সেটাও অনেক মজা লাগে। )

আপনি ভাত , পোলাও বা বিরিয়ানির সঙ্গে এটি পরিবেশন করতে পারেন। বিশেষ করে ইফতারিতে এটা বেশি ভালো লাগে।